ঢাকা   মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ২ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  তরঙ্গ মহিলা কল্যাণ সংস্থা,জামালপুরের আয়োজনে পারিবারিক বিরোধ নিষ্পত্তিতে সালিশ বিষয়ক প্রশিক্ষন (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে বিচারকদের সাথে আস্থা প্রকল্পের কর্মশালা (জামালপুরের খবর)        বিআরটিসি এসি বাসে কোন অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না-জেলা প্রশাসন (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে বৃক্ষমেলা সমাপ্ত (জামালপুরের খবর)        ফারুক আহাম্মেদ চৌধুরীর রোগমুক্তি কামনায় মৎস্যজীবী লীগের দোয়া মাহফিল (জামালপুরের খবর)        শেরপুরে শিশু ফোরামের আটটি শাখাকে সম্মাননা প্রদান (জেলার খবর)        শ্রীবরদীতে স্বাক্ষরতা প্রকল্পের উদ্বোধন (জেলার খবর)        রংপুর উপনির্বাচন: সরে দাঁড়ানো ঘোষণা আ. লীগ প্রার্থীর (রাজনীতি)        ছাত্রলীগের কেউ অনিয়ম করলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা: নাহিয়ান (রাজনীতি)        মেট্রোরেলের নিরাপত্তায় পুলিশের আলাদা ইউনিট গঠনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর (জাতীয়)      

দু’দিন পিছিয়ে শনিবার আসছে ‘রাজহংস’

Logo Missing
প্রকাশিত: 07:24:03 pm, 2019-09-11 |  দেখা হয়েছে: 7 বার।

আ.জা.ডেক্সঃ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চতুর্থ বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার ‘রাজহংসের’ দেশে আসা দুদিন পিছিয়ে গেছে। বিমানের জনসংযোগ শাখার উপমহাব্যবস্থাপক তাহেরা খন্দকার জানান, শনিবার বিকেল পৌনে ৪টায় ‘রাজহংস’ ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবে। এয়ারক্রাফটির আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা পৌঁছানোর কথা থাকলেও নির্মাতা কোম্পানি বোয়িং দুই দিন সময় চেয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এ কারণে রাজহংসের দেশে আসতে সময় বেশি লাগছে। শেষ মুহূর্তে কারিগরি জটিলতায় রাজহংসের আসতে দেরি হচ্ছে বলে কয়েকটি গণমাধ্যমে খবর এলেও বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারেননি তাহেরা খন্দকার। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এর আগে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়েছিল, বৃহস্পতিবার তাদের চতুর্থ ড্রিম লাইনার দেশে আসার পর শনিবার বেলা ১১টায় শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উড়োজাহাজটি উদ্বোধন করবেন। সেই পরিকল্পনা পিছিয়ে যাওয়ায় বিমান বহরে রাজহংসের অনর্ভুক্তির আনুষ্ঠানিকতা কখন সারা হবে তা এখনও ঠিক হয়নি বলে জানান তাহেরা খন্দকার। মার্কিন উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িংয়ের কাছ থেকে ১০টি নতুন এয়ারক্র্যাফট কিনতে ২০০৮ সালে চুক্তি করে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। তার মধ্যে চারটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর, দুটি বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এবং তিনটি বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার ইতোমধ্যে বিমানের বহরে যুক্ত হয়েছে। ‘রাজহংস’ বহরে যুক্ত হলে সব মিলিয়ে বিমানের নিজস্ব উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়াবে ১৬টি। বিমান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, টানা ১৬ ঘণ্টা উড়তে সক্ষম ড্রিমলাইনার চালাতে অন্যান্য উড়োজাহাজের তুলনায় ২০ শতাংশ কম জ¦ালানির দরকার হয়। ২৭১ আসনের রাজহংসে বিজনেস ক্লাসের আসন থাকছে ২৪টি। ইন্টারনেট ও ফোনসহ অন্যান্য আধুনিক সুযোগ সুবিধা এ উড়োজাহাজে পাওয়া যাবে। বিমানের চার ড্রিমলাইনারের নাম পছন্দ ও বাছাই করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগে পাওয়া তিনটি উড়োজাহাজের নাম রাখা হয়েছে আকাশবীণা, হংসবলাকা ও গাঙচিল। ২০২০ সালের মার্চ-জুন মাসের মধ্যে কানাডা থেকে স্বল্প পাল্লার ৩টি নতুন ড্যাশ ৮-কিউ৪০০ উড়োজাহাজ বহরে যুক্ত হবে বলে বিমানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।