ঢাকা   মঙ্গলবার ০৭ এপ্রিল ২০২০ | ২৪ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  বিশ্বব্যাপী করোনায় মৃত্যু ৭০ হাজার ছাড়ালো (আন্তর্জাতিক)        হাসপাতালে ভর্তি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন (আন্তর্জাতিক)        করোনায় লিবিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রীর মৃত্যু (আন্তর্জাতিক)        তাবলিগে আসা পলাতক ৮ মালয়েশীয় নাগরিক দিল্লি বিমানবন্দরে আটক (আন্তর্জাতিক)        ভারতে ২৪ ঘণ্টায় ৩২ জনের মৃত্যু (আন্তর্জাতিক)        চীনে বাড়ছে উপসর্গহীন করোনা রোগী (আন্তর্জাতিক)        সিঙ্গাপুরে ২০ হাজার অভিবাসী শ্রমিক কোয়ারেন্টিনে (আন্তর্জাতিক)        এবার করোনায় আক্রান্ত বাঘ (আন্তর্জাতিক)        ইসলামপুরে রাতে ঘরে ঘরে ত্রানসামগ্রী নিয়ে প্রশাসন (জামালপুরের খবর)        জামালপুর জেলা পুলিশ কর্তৃক সাময়িক কর্মহীন সম্মানিত মহিলা ও পুরুষদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম (জামালপুরের খবর)      

বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলন

Logo Missing
প্রকাশিত: 11:43:28 pm, 2019-09-19 |  দেখা হয়েছে: 2 বার।

আ.জা.ডেক্সঃ গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা উপাচার্য খোন্দকার নাসির উদ্দিনের পদত্যাগসহ বিভিন্ন দাবিতে আন্দোলন করছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এই আন্দোলন শুরু হয়। তাদের দাবির মধ্যে রয়েছে, উপাচার্য নাসির উদ্দিনের পদত্যাগ, ফেসবুকে কোনো ধরনের লেখালেখির কারণে বহিষ্কার না করা, বেতন-ফি কমানো ইত্যাদি। গত বুধবার রাতে এই আন্দোলন শুরু হলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিকভাবে সব দাবি মেনে নেওয়ার ঘোষণা দেয়। কিন্তু সকালে আবার আন্দোলন শুরু হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার নূর উদ্দিন আহমদ বলেন, তাদের সব দাবি আমরা মেনে নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে অফিস আদেশ জারি করেছি। তার পরও আন্দোলন চলছে। তারা কী কারণে আন্দোলন করছে তা আমার জানা নেই। এ ব্যাপারে তারা আমাদের কাছে লিখিত কোনো কিছু জানায়নি। তাদের লিখিত আবেদন পাওয়ার পর আন্দোলনের সঠিক কারণ যানা যাবে। আন্দোলনে থাকা শিক্ষার্থীরা বলেন, ভিসি খোন্দকার নাসির উদ্দিন কথায় কথায় বহিষ্কার করেন। দুই বছরে ৩৪ জনকে বহিষ্কার করেছেন। দেশের অন্য কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে এমনটা ঘটেছে কিনা সেটা আমরা জানতে চাই। দুই বছরে ৩৪ জনকে বহিষ্কারের পর বেশির ভাগেরই বহিষ্কার-আদেশ প্রত্যাহার করা হলেও সবার খবর জানা যায়নি। গত ১১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সাংবাদিক ফাতেমা-তুজ-জিনিয়াকে বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তার ফেসবুক পোস্টকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ দাবি করে তাকে বহিষ্কার করা হয়। জিনিয়া ডেইলি সান পত্রিকার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি। জিনিয়াকে বহিষ্কারের প্রতিবাদ করেন দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী-সাংবাদিকরা। এরপর গত বুধবার জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে বিশ্ববিদ্যালয়। এ ঘটনার পর আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা।