ঢাকা   ২৩ অক্টোবর ২০১৯ | ৮ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  ইলিশ শিকারের দায়ে বরিশালের ৩ পুলিশ বরখাস্ত (বরিশাল)        ঢাকায় নদীর তীরে প্লট-ফ্ল্যাট কেনায় নৌমন্ত্রণালয়ের সতর্কবার্তা (ঢাকা)        জয়পুরহাটে গৃহবধূকে ধর্ষণের পর হত্যায় ৭ জনের মৃত্যুদন্ড (জেলার খবর)        চবির শাটল ট্রেনের বগির নামে প্ল্যাকার্ড-স্লোগান দেওয়ায় ছাত্রলীগের নিষেধাজ্ঞা (রাজনীতি)        পরিবেশ দূষণ করায় চট্টগ্রামে তিন কারখানাকে প্রায় ৭ লাখ টাকা জরিমানা (চট্রগ্রাম)        সাময়িক বরখাস্ত হলেন ডিসি অফিসের অফিস সহায়ক সানজিদা ইয়াসমিন সাধনা (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত (জামালপুরের খবর)        শেরপুরে পুলিশ অ্যাসল্টের মামলা, গ্রেফতার আতঙ্কে পুরুষশূন্য এলাকা (জেলার খবর)        দেওয়ানগঞ্জ বিশেষ শিক্ষা বিদ্যালয়ের উদ্যোগে বিনা মুল্যে চক্ষু চিকিৎসা ক্যাম্পের উদ্বোধন (জামালপুরের খবর)        বিপ্লব চন্দ্রের শাস্তির দাবি ও ৪ জনকে হত্যার প্রতিবাদে জামালপুরে তৌহিদী জনতার বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ (জামালপুরের খবর)      

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে ইবির প্রক্টর অপসারণ

Logo Missing
প্রকাশিত: 07:48:27 pm, 2019-09-23 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা.ডেক্সঃ শিক্ষার্থীদের লাগাতার আন্দোলনের মুখে কুষ্টিয়া ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) প্রক্টর মাহবুবর রহমানকে অপসারণ করা হয়েছে। তার জায়গায় নতুন প্রক্টর হিসেবে অধ্যাপক পরেশ চন্দ্র বর্মণকে সাময়িকভাবে প্রক্টরের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক শাহীনুর রহমান জানিয়েছেন। গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তের পর শিক্ষার্থীরা আন্দোলন প্রত্যাহার করে নেয়। এর আগে রোবাবার সকাল থেকেই প্রক্টর মাহবুবর রহমানের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ চালিয়ে যায় ছাত্রলীগ কর্মীরা। বেলা দেড়টার দিকে আন্দোলনকারীরা মিছিল নিয়ে প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান নেয় এবং প্রধান ফটকে তালা দিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক মাহবুবর রহমান গত শনিবার তৃতীয়বারের মত ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর হিসেবে দায়িত্ব নেন। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, এর আগে প্রক্টর থাকাকালে মাহাবুবরের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি, ‘নিয়োগ বাণিজ্য’সহ ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ ওঠে। ওই সময়ও তার বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছিল শিক্ষার্থীরা। মাহবুবর রহমান দায়িত্ব গ্রহণের পরপরই ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কাছে তার অপসারণের দাবি জানান এবং তাকে না সরানো পর্যন্ত লাগাতার আন্দোলনের ঘোষণা দেন। এ বিষয়ে অধ্যাপক মাহবুবরের ভাষ্য- মাদক ও বহিরাগতমুক্ত ক্যাম্পাস গড়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়ায় ছাত্রলীগের বিদ্রোহী পক্ষের নেতাকর্মীরা আমার বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামে।