ঢাকা   রবিবার ১৯ জানুয়ারী ২০২০ | ৬ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  দেওয়ানগঞ্জ গণগ্রন্থাগারে পুরস্কার বিতরণ (জামালপুরের খবর)        কুড়িগ্রামে সীমান্ত এলাকায় বিজিবির জনসচেতনতামূলক প্রেষণা ও মতবিনিময় সভা (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে গরুচোর আতঙ্ক (জামালপুরের খবর)        রশিদপুর ইউনিয়নে শত বার্ষিকী ও মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের মিলন মেলা (জামালপুরের খবর)        বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় টুর্ণামেন্ট জয়ী বিদ্যালয়কে সহযোগিতা করলেন ইউএনও (জামালপুরের খবর)        শাহবাজপুর তালুকদার বাড়ী জামে মসজিদের ছাদ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন (জামালপুরের খবর)        বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে সরিষাবাড়ীতে বর্নাঢ্য র‌্যালী ও পথ সভা (জামালপুরের খবর)        রৌমারীতে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয় পরিদর্শন (জেলার খবর)        জামালপুরে এশিয়ান টিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে জাতীয় সঞ্চয় সপ্তাহ শুরু (জামালপুরের খবর)      

মোদির জন্য আসছে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী বিমান

Logo Missing
প্রকাশিত: 10:48:41 am, 2019-10-07 |  দেখা হয়েছে: 2 বার।

আ.জা. আন্তর্জাতিক:

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতোই নিরাপত্তা পেতে যাচ্ছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কারণ আগামি বছরের মাঝামাঝিতেই বিশেষ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরোধী দুটি বোয়িং ৭৭৭ বিমান ভারতে আসবে। প্রধানমন্ত্রী মোদির নিরাপত্তার জন্যই ওই বিমান দুটি আনা হচ্ছে। তবে ওই বিমানে মোদি ছাড়াও ভারতের রাষ্ট্রপতি এবং উপরাষ্ট্রপতি চড়তে পারবেন। হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই বিমানের বিষয়ে পরিকল্পনা বাস্তবায়নের চেষ্টা করা হচ্ছে। বিমান দুটি নাম হবে এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান। বিমান দুটিতে থাকবে বিশেষ কনফিগারেশন। অফিস স্পেশ ছাড়া মিটিং রুমও থাকবে সেখানে। থাকবে বিশেষ যোগাযোগ ব্যবস্থাও। মার্কিন প্রেসিডেন্ট যেভাবে এয়ার ফোর্স ওয়ান ব্যবহার করেন ঠিক তেমনই এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান বিমানে থাকবে সেল্ফ প্রোটেকশন সুইট (এসপিএস)। এই এসপিএস সুরক্ষা ব্যবস্থা অত্যন্ত উন্নত প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা। এতে সব ধরনের উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার থাকবে। এয়ার ইন্ডিয়া ওয়ান বিমান শত্রুপক্ষের রাডার বিকল করে দিতে সক্ষম হবে। মিসাইলের গতিপথও বদল করে দেবে। বিমানের সতর্কতা এবং কাউন্টারমেজার সিস্টেমগুলোর জন্য পাইলটকে কোনো পদক্ষেপ নিতে হবে না। প্রয়োজন মতো স্বয়ংক্রিয়ভাবেই সেটি কাজ করতে শুরু করবে। ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে হোয়াইট হাউসের তরফ থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের ব্যবহারকারী বিমান প্রতিরক্ষা ভারতের হাতে দেওয়ার কথা জানানো হয়েছিল। এই বিমানে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার সম্ভাবনা আছে কিনা তা আগে থেকেই জানা যাবে। এ ধরনের বিমানের পেছনে খরচ হবে প্রায় ১৯ কোটি মার্কিন ডলার।