ঢাকা   ২২ জানুয়ারী ২০২০ | ৯ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  কামার বাড়িতে কামার নেই নাপিত বাড়িতে নাপিত (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে হতদরিদ্র ও ঝড়েপড়া শিশুদের শিক্ষার মানোন্নয়নে শিক্ষা সেবিকা সম্মেলন (জামালপুরের খবর)        ইসলামপুরে ৮টি চোরাই গরুসহ ৩ চোর আটক (জামালপুরের খবর)        রশিদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে বার্ষিক পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান (জামালপুরের খবর)        জামালপুরের ইসলামপুরে উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়োগ বানিজ্য বন্ধ করায় সভাপতি আহত (জামালপুরের খবর)        সেবার মান উন্নয়নে ৯নং রানাগাছা ইউনিয়ন পরিষদের কর্তৃপক্ষের সাথে সনাক-জামালপুর এর মতবিনিময় সভা (জামালপুরের খবর)        নারায়নপুরে পুলিশের অভিযানে দুটি গরু উদ্ধার (জামালপুরের খবর)        রাজিবপুরে ৫০ পিছ ভারতীয় ইয়াবাসহ ২ জন আটক (জেলার খবর)        সংসদ চত্বরে ইসমাত আরার জানাজা, রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা (জাতীয়)        জামালপুরে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল এবং নার্সিং কলেজ স্থাপন সহ একনেকে ৮ প্রকল্প অনুমোদন (জাতীয়)      

মেলান্দহে ভূমির প্রকৃত মালিকের বিরুদ্ধে জবর দখলকারীর আদালতে মামলা

Logo Missing
প্রকাশিত: 01:46:56 pm, 2019-10-10 |  দেখা হয়েছে: 6 বার।

স্টাফ রিপোর্টার:

উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের পুগলীপাড়া গ্রামের মৃত ফজল মোল্লার ছেলে এরশাদ মোল্লার পৈত্রিক ও ক্রয়কৃত ভূমিতে প্রতিবেশী গ্রামের মৃত কিপু ফকিরের ছেলে আহাদ আলী সংগীয় লোকজন নিয়ে এরশাদ মোল্লার পৈত্রিক সম্পত্তিতে রাতের অন্ধকারে গাছ কেটে বসত ঘর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সংবাদে আলোচ্য বিষয়বস্তু হচ্ছে, ভূমি দস্যু আহাদ আলী গং- দখলকৃত ভূমি মেলান্দহ উপজেলার পুগলীপাড়া গ্রামে হলেও ভূমি মালিকের বিরুদ্ধে আদালতে দায়েরকৃত ০৭ ধারা মামলায় ভূমির অবস্থান ইসলামপুর উপজেলার পচাবহলা মৌজায় বি.আর.এস খতিয়ান নং- ২০, দাগ নং- ১১৪৮ এ ৯ শতাংশ ভূমি দেখিয়েছে। ভূমি দস্যু আহাদ আলীর জাতীয় পরিচয় পত্রে গ্রাম তেঘরিয়া, ডাকঘর- হরিপুর, উপজেলা মেলান্দহ থাকলেও মামলায় গ্রাম- পচাবহলা ফকিরপাড়া, ইসলামপুর উপজেলা ঠিকানা উল্লেখ করে বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালত “খ” অঞ্চল জামালপুর, মামলা নম্বর- ৭২২/২০১৯ ইং দায়ের করেছে। ভূমির প্রকৃত মালিক এরশাদ আমাদের প্রতিবেদককে জানায়, উক্ত দস্যুকে তার ভূমিতে কয়েকটি গাছ কেটে ঘর নির্মাণের সহযোগিতা করেছে ভূমির নিকস্থ বসবাসকারী ১। ইলু ফকির, পিতা- মুজা ফকির, ২। মতিউর রহমান, পিতা- মৃত ময়দর ফকির, ৩। শফিকুল ইসলাম, পিতা- কুদ্দুস আলী, ৪। ভালু ফকির, পিতা- মৃত সুলতান ফকির, ৫। রাজা ফকির, পিতা- মৃত কোরবান ফকির, ৬। খোকা ফকির, পিতা- মৃত কোরবান ফকির ও সম ফকির, পিতা- মৃত মক্কু ফকির। উল্লেখ্য যে, এদের মধ্যে মতিউর রহমান কুলিয়া দাখিল মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করেন। উল্লেখিত ভূমি দস্যুদের কুলিয়া ইউ.পি চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম বিষয়টি সুরাহার জন্য আহবান করলেও তারা কোন সাড়া দেয়নি। এলাকাবাসী জানান, এমন ভূমি দস্যুদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা দ্রুত গ্রহণ না করলে যে কোন মুহুর্তে খুন খারাপির মত ঘটনা সৃষ্টি হতে পারে। ভূমি দস্যুদের হুমকিতে ভূমির প্রকৃত মালিক এরশাদসহ তার পরিবার নিরাপত্তা হীনতায় ভোগছে।

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!