ঢাকা   বৃহস্পতিবার ০৪ জুন ২০২০ | ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামালপুরে ৬শ অসহায় পরিবারকে বিজিবির ত্রাণ বিতরণ (জামালপুরের খবর)        জামালপুরবাসীর স্বাস্থ্যসেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চাই: আশরাফুল ইসলাম বুলবুল (জামালপুরের খবর)        করোনা দুর্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষের সমস্যা নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন-মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)        গন্তব্যে পৌছবে কি ছানুর নৌকা (জামালপুরের খবর)        বেতন ও বোনাসের টাকায় ঈদ সামগ্রী নিয়ে দেড়শ মধ্যবিত্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন কিরন আলী (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে ভাগ্য বিড়ম্বিত শিশুদের মাঝে ঈদ উপহার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে তরুনদের সহায়তায় দুইশত পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ (জামালপুরের খবর)        ময়মনসিংহে ৩শ দরিদ্র পরিবারের মাঝে সেনা প্রধানের ঈদ উপহার পৌঁছে দিলেন আর্টডক সদস্যরা (ময়মনসিংহ)        করোনা যোদ্ধা নার্সিং সুপারভাইজার শেফালী দাস শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন (ময়মনসিংহ)        বিদ্যানদীর মত সকল সামাজিক সংগঠন যদি এই দুর্যোগের সময়ে এগিয়ে আসে তবে সরকারের উপর চাপ অনেকংশে কমে যাবে -মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)      

বাবরি মসজিদ-রাম মন্দির মামলার রায় ঘিরে অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা

Logo Missing
প্রকাশিত: 02:58:02 pm, 2019-10-15 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা. আন্তর্জাতিক:

বাবরি মসজিদ-রাম জন্মভ‚মি বিরোধ নিয়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট আগামি ১৭ নভেম্বর রায় ঘোষণা করতে পারেন। এই রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। গত শনিবার থেকেই এই নির্দেশ কার্যকর হয়েছে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে। বাবরি মসজিদ-রাম জন্মভূমি বিরোধ নিয়ে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট আগামি ১৭ নভেম্বর রায় ঘোষণা করতে পারেন। এই রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। শনিবার থেকেই এই নির্দেশ কার্যকর হয়েছে বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে।

অযোধ্যার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অনুজ কুমার ঝা বলেন, দিওয়ালি, অন্যান্য উৎসব ও সুপ্রিম কোর্টে চলমান শুনানিকে কেন্দ্র করে অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত এটি কার্যকর থাকবে। ১৪৪ ধারা জারির ফলে অযোধ্যায় চারজনের বেশি মানুষ একসঙ্গে সমবেত হতে পারবেন না। সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে প্রতিবছর অযোধ্যায় এই সময়ে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়ে থাকে। এক টুইট বার্তায় অনুজ কুমার আরও বলেন, আমি আরও মনে করিয়ে দিতে চাই, বেআইনি ও অনাকাক্সিক্ষত কর্মকান্ড প্রতিরোধে ৩১ আগস্ট থেকে আরেকটি নির্দেশ কার্যকর রয়েছে। শনিবার জারি করা নির্দেশে আরও কয়েকটি এলাকা যুক্ত করা হয়েছে, যা আগের নির্দেশে অন্তর্ভুক্ত ছিল না। এই কর্মকর্তা জানান, যারা অযোধ্যা ভ্রমণ করছেন তাদের নিরাপত্তা ও সুরক্ষায় এই নির্দেশগুলো জারি করা হয়েছে।

স্থানীয় কর্মকর্তারা বলছেন, বাবরি মসজিদ ভাঙচুরের বার্ষিকী ৬ ডিসেম্বর। এই দিনটি ঘিরে ১৪৪ ধারা জারি করা জরুরি। এ ছাড়া সুপ্রিম কোর্ট মামলার রায়ও ঘোষণা করতে পারেন। মামলায় মুসলিম পক্ষের একজন মামলাকারী প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারা জারিকে স্বাগত জানিয়েছেন। ইকবাল আনসারী নামের ওই ব্যক্তি বলেন, অযোধ্যায় শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখা ও অপ্রত্যাশিত কর্মকান্ড ঠেকাতে এটি প্রয়োজনীয়। বিশ্ব হিন্দু পরিষদও এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। সংগঠনটির আঞ্চলিক মুখপাত্র শারদ শর্মা বলেন, অযোধ্যায় শান্তি ও সম্প্রীতি নিশ্চিত করার যে কোনও পদক্ষেপকে আমরা স্বাগত জানাই।