ঢাকা   ০৩ জুন ২০২০ | ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামালপুরে ৬শ অসহায় পরিবারকে বিজিবির ত্রাণ বিতরণ (জামালপুরের খবর)        জামালপুরবাসীর স্বাস্থ্যসেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চাই: আশরাফুল ইসলাম বুলবুল (জামালপুরের খবর)        করোনা দুর্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষের সমস্যা নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন-মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)        গন্তব্যে পৌছবে কি ছানুর নৌকা (জামালপুরের খবর)        বেতন ও বোনাসের টাকায় ঈদ সামগ্রী নিয়ে দেড়শ মধ্যবিত্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন কিরন আলী (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে ভাগ্য বিড়ম্বিত শিশুদের মাঝে ঈদ উপহার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে তরুনদের সহায়তায় দুইশত পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ (জামালপুরের খবর)        ময়মনসিংহে ৩শ দরিদ্র পরিবারের মাঝে সেনা প্রধানের ঈদ উপহার পৌঁছে দিলেন আর্টডক সদস্যরা (ময়মনসিংহ)        করোনা যোদ্ধা নার্সিং সুপারভাইজার শেফালী দাস শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন (ময়মনসিংহ)        বিদ্যানদীর মত সকল সামাজিক সংগঠন যদি এই দুর্যোগের সময়ে এগিয়ে আসে তবে সরকারের উপর চাপ অনেকংশে কমে যাবে -মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)      

ঝিনাইগাতীতে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার অভিযোগে ইউপি সদস্যকে গ্রেফতার

Logo Missing
প্রকাশিত: 03:13:21 pm, 2019-10-15 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

ঝিনাইগাতী সংবাদদাতা:

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টার অভিযোগে হানিফ উদ্দিন (৫০) নামে এক ইউপি সদস্যকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। হানিফ উদ্দিন উপজেলার হাতিবান্ধা ইউনিয়নের কবিরাজপাড়া গ্রামের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য। গত ১৩ অক্টোবর রবিবার তাকে গ্রেফতার করা হয়। গতকাল সোমবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, ৯ অক্টোবর বুধবার কবিরাজপাড়া গ্রামের আব্দুল করিমের ছেলে আবু সাইদের বিয়ের অনুষ্ঠান চলছিল। রাত ৯ টার দিকে ওই গ্রামের জমসেদ আলীর ছেলে খবির (২০) মকবুল হোসেনের ছেলে নুরুজ্জামান (২০) জয়নাল আবেদীনের ছেলে শান্ত (১৮) ইসমাইল হোসেনের ছেলে জিহাদ (১৮) ওই বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে ৪র্থ শ্রেণীর এক ছাত্রী (১২) কে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ চালায়। ওই ধর্ষিতা ঘাগড়া পুটলপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রী। মৃত পিতার কণ্যা মাতা বিদেশে থাকায় চাচার আশ্রয়ে রয়েছে ওই ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রী।

ঘটনার পরদিন ধর্ষকদের পরিবারের লোকজন ধর্ষিতাকে আটকে রেখে ইউপি সদস্য হানিফ উদ্দিনসহ গ্রামের অন্যান্য লোকজন ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়া ও ধর্ষণের আলামত নষ্টের চেষ্টায় লিপ্ত হন। খবর পেয়ে রবিবার দুপুরে থানা পুলিশ ইউপি সদস্য হানিফ উদ্দিনকে গ্রেফতার করে।

এ ব্যাপারে ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীর চাচা বাদশা আলী বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। রবিবার বিকালে শেরপুরের পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজিম ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন। এ সময় পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

ঝিনাইগাতী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বকর ছিদ্দিক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ভিকটিমকে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের ব্যাপারে পুলিশি অভিযান চলছে।