ঢাকা   শুক্রবার ২৯ মে ২০২০ | ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামালপুরে ৬শ অসহায় পরিবারকে বিজিবির ত্রাণ বিতরণ (জামালপুরের খবর)        জামালপুরবাসীর স্বাস্থ্যসেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চাই: আশরাফুল ইসলাম বুলবুল (জামালপুরের খবর)        করোনা দুর্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষের সমস্যা নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন-মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)        গন্তব্যে পৌছবে কি ছানুর নৌকা (জামালপুরের খবর)        বেতন ও বোনাসের টাকায় ঈদ সামগ্রী নিয়ে দেড়শ মধ্যবিত্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন কিরন আলী (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে ভাগ্য বিড়ম্বিত শিশুদের মাঝে ঈদ উপহার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে তরুনদের সহায়তায় দুইশত পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ (জামালপুরের খবর)        ময়মনসিংহে ৩শ দরিদ্র পরিবারের মাঝে সেনা প্রধানের ঈদ উপহার পৌঁছে দিলেন আর্টডক সদস্যরা (ময়মনসিংহ)        করোনা যোদ্ধা নার্সিং সুপারভাইজার শেফালী দাস শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন (ময়মনসিংহ)        বিদ্যানদীর মত সকল সামাজিক সংগঠন যদি এই দুর্যোগের সময়ে এগিয়ে আসে তবে সরকারের উপর চাপ অনেকংশে কমে যাবে -মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)      

সৌদিতে দুর্ঘটনায় নিহত ৩৬ জনের মধ্যে ১১ জন বাংলাদেশি

Logo Missing
প্রকাশিত: 11:12:23 pm, 2019-10-19 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা.ডেক্সঃ

সৌদি আরবের মদিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩৬ জনের মধ্যে ১১ জনই বাংলাদেশি। গত ১৬ অক্টোবর দেশটির স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় মদিনা থেকে ১৯০ কিলোমিটার দূরে আল আকহাল নামের এলাকায় ওই দুর্ঘটনা ঘটে। গতকাল শনিবার বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেদ্দার শ্রম কল্যাণ উইংয়ের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় ওই দুর্ঘটনায় নিহত ৩৬ জনের মধ্যে ১১ জনই বাংলাদেশি। শ্রম কল্যাণ উইংয়ের প্রথম সচিব কে এম সালাহউদ্দিন স্বাক্ষরিক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাসটিতে ৪০ জন যাত্রী ছিলেন। তাদের মধ্যে চারজন আহত হন যাদের কেউ বাংলাদেশি নন। দুর্ঘটনায় নিহত হন ৩৬ জন। তাঁদের দেহ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। মদিনার আল-মিকাত হাসপাতালে নিহতদের ডিএনএনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। স্বজনরা যোগাযোগ করলে ওই হাসপাতাল এ শনাক্ত করার ব্যাপারে সহযোগিতা করবে বলে জানিয়েছে ওই হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগ। বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, বাসটি রিয়াদ হতে যাত্রা শুরু করেছিল। বাস কোম্পানিসূত্রে জানা যায় এর মধ্যে ১৩ জন ছিলেন বাংলাদেশি। তাদের মধ্যে কেবল নাম সংগ্রহ করা গেছে ১০ জনের। ওই ১৩ জনের মধ্যে দুজন মদিনায় নেমে যান। বাকি ১১ জন মক্কাগামী ওই বাসের যাত্রী ছিলেন বলে বাস কোম্পানিটি জানিয়েছে। রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে বাস কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ওই ১৩ জন প্রবাসী বাংলাদেশির ইকামা নম্বর ও অন্যান্য তথ্য সংগ্রহ করার প্রচেষ্টা নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বাস কর্তৃপক্ষ এ জাতীয় তথ্য প্রদান করতে পারেনি। বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, সার্বিক অবস্থা পর্যালোচনায় দেখা যায় ডিএনএ পরীক্ষা ব্যতীত মৃত ব্যক্তিদের পূর্ণাঙ্গ তথ্য পাওয়ার সুযোগ নেই। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কনস্যুলেটের পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ অব্যাহত আছে। গত ১৬ অক্টোবর সৌদি আরবের স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় রাজধানী রিয়াদ থেকে আসা উমরাহ যাত্রীবাহী একটি বাস মদিনা জেয়ারাহ শেষে মক্কার উদ্দেশে আসার পথে মদিনা শহর থেকে আনুমানিক ১৯০ কিলোমিটার দূরে আল আকহাল নামক স্থানে রাস্তা সংস্কারের কাজে নিয়োজিত একটি ভারি যান ধাক্কা দিলে বাসটিতে আগুন লেগে যায়। অন্যদিকে মদিনার ট্রাফিক অফিস জানায় বাসটির চালক ছিলেন সিরিয়ার নাগরিক। সেই সঙ্গে বাসটির কোনো বিমার আওতায় না থাকায় কোনো ধরনের মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ পাওয়ার সম্ভাবনা নেই। জেদ্দা বাংলাদেশ কনস্যুলেট থেকে এখনো কারো নাম প্রকাশ না করলেও একটি বিশেষ সূত্রে ছয়জনের নাম পাওয়া গেছে। তাঁরা হলেন, মোকতার হোসেন, হুমায়ুন কবির, নাসির, রুহুল আমিন, মানু মিয়া, সাকিব। বাকি পাঁচজনের পরিচয় নিশ্চিত করার চেষ্টা চলছে।