ঢাকা   মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ | ২৮ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  বেসরকারি খাতে চলাচলকারী ট্রেনগুলোর আয় বাড়লেও কমেছে রেলের আয় (জাতীয়)        প্রশাসনেও শুদ্ধি অভিযানের প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার (জাতীয়)        সিরিজে অধিনায়কের চোখে প্রাপ্তি (ক্রিকেট)        হারের কারণ জানা থাকলেও সমাধান অজানা (ক্রিকেট)        রুবেলের ৭ উইকেট ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে (ক্রিকেট)        ন্যাটোতে রুশ অস্ত্রের কোনো ঠাঁই নেই: ট্রাম্প (আন্তর্জাতিক)        ইরাকে সরকার বিরোধী বিক্ষোভে ১ মাসে নিহত ৩১৯ (আন্তর্জাতিক)        স্পেনের সাধারণ নির্বাচনে ফের জয়ী ক্ষমতাসীন সোশ্যালিস্ট পার্টি (আন্তর্জাতিক)        বাবরি মসজিদের রায় : জমি সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত ২৬ নভেম্বর (আন্তর্জাতিক)        বিক্ষোভের মুখে পদত্যাগ করলেন বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট (আন্তর্জাতিক)      

সাগর-রুনি হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে হাইকোর্টে তলব

Logo Missing
প্রকাশিত: 11:20:13 pm, 2019-10-20 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা.ডেক্সঃ

সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। গতকাল রোববার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহমানের বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আগামি ৬ নভেম্বর তদন্ত কর্মকর্তাকে হাইকোর্টে হাজির হতে বলা হয়েছে। এ মামলার সন্দেহভাজন আসামি তানভীর রহমানের বাতিল চেয়ে করা আবেদনের শুনানি নিয়ে গতকাল রোববার বিচারপতি এম, ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। একই সঙ্গে সন্দেহভাজন আসামি তানভীর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা কেন বাতিল করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী ফাওজিয়া করিম ফিরোজ। পরে তিনি বলেন, দীর্ঘ ৮ বছরেও মামলার তদন্ত শেষ না হওয়ায় আদালত ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। পরে আদালত মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে তলব করেছেন। আগামি ৬ নভেম্বর তাকে আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে। এ মামলার সন্দেহভাজন আসামি তানভীর রহমান ২০১৪ সালে নিম্ন আদালত থেকে জামিন পান। এরপর থেকে তিনি জামিনে থাকলেও প্রতি শুনানির তারিখে তাকে আদালতে হাজির হতে হচ্ছে।


তিনি বলেন, এ অবস্থার মধ্যে কোন মানুষ চলতে পারে না। দীর্ঘ দিন মামলার তদন্ত শেষ না হওয়ায় অনিশ্চয়তা জীবন যাপন করছেন তিনি। এ কারণে তার বিরুদ্ধে মামলা বাতিল চেয়ে আবেদন করা হয়। ২০১২ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর পশ্চিম রাজাবাজারে ভাড়া বাসায় খুন হন সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি। এ বিষয়ে শেরেবাংলা নগর থানায় হত্যা মামলা করেন মেহেরুন রুনির ছোট ভাই নওশের আলম। সাংবাদিক দম্পতি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন ৬৮ বারেও জমা দিতে পারেননি তদন্ত কর্মকর্তা। ওই মামলার পরবর্তী দিন ঠিক করা হয়েছে ১৪ নভেম্বর। শেরেবাংলা নগর থানার মাধ্যমে মামলাটির তদন্ত শুরু হলেও চারদিন পর এর তদন্তভার ঢাকা মহানগর ডিবি পুলিশকে দেওয়া হয়। দুইমাসেরও বেশি সময় তদন্ত করে ডিবি পুলিশ এর রহস্য উদঘাটন করতে পারেননি। এরপর ২০১৪ সালের ১৮ এপ্রিল হাইকোর্টের নির্দেশে হত্যা মামলাটির তদন্তভার র‌্যাবের ওপর দেওয়া হয়।