ঢাকা   মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর ২০১৯ | ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  পেটে গজ-ব্যান্ডেজ রেখে সেলাই, রংপুরে প্রসূতির মৃত্যু (দেশজুড়ে)        নওগাঁয় ট্রাক চাপায় মা-মেয়ে নিহত (ঘটনা-দুর্ঘটনা)        রাজশাহীর সেই আমবাগানকে পাখির জন্য অভয়ারণ্য করার উদ্যোগ (কৃষি ও প্রকৃতি)        সড়ক পরিবহন আইনের প্রতিবাদে বিভিন্ন জেলায় বাস বন্ধ (দেশজুড়ে)        শেরপুর সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত (জেলার খবর)        যত চাপই থাকুক সড়ক পরিবহন আইন বাস্তবায়ন হবে: সেতুমন্ত্রী (জাতীয়)        বিস্ফোরণ গ্যাস লাইন থেকে হয়নি: কেজিডিসিএল (ঘটনা-দুর্ঘটনা)        নতুন পরিবহন আইন কার্যকরে প্রতিবন্ধক হয়ে দাঁড়াচ্ছে বৈধ ও দক্ষ চালকের সঙ্কট (জাতীয়)        বঙ্গবন্ধু বিপিএলে কে কোন দলে (ক্রিকেট)        এবারের বিপিএলে যা কিছু নতুন (ক্রিকেট)      

নরসিংদীতে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ, আটক ১

Logo Missing
প্রকাশিত: 09:48:01 pm, 2019-11-03 |  দেখা হয়েছে: 4 বার।

আ.জা. ডেক্স:

নরসিংদীর শিবপুর উপজেলায় চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে এক কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গত শনিবার রাতে রাকিব মিয়া (২০) নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। আটক রাকিব শিবপুরের সৃষ্টিগড় গ্রামের বাসিন্দা। এ ঘটনায় একই এলাকার আরিফ (২৫) নামের আরো একজন পলাতক। ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী স্থানীয় একটি কলেজের শিক্ষার্থী। গত শনিবার বিকেলে তাঁকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শিবপুর থানা পুলিশ জানিয়েছে, কিছুদিন আগে আরিফ মিয়া (২৫) ওই তরুণীকে ফোন দিয়ে চাকরির প্রলোভন দেখান। ওই সময় নিজেকে একটি কোম্পানির মালিক বলে পরিচয় দেন আরিফ। চাকরির আশ্বাস দিয়ে গত শুক্রবার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে ওই তরুণীকে দেখা করতে বলেন তিনি। কথা অনুযায়ী ওই তরুণী শিবপুরের বড়ইতলা এলাকায় স্যামসাং কারখানার সামনে অপেক্ষা করতে থাকেন। এ সময় আরিফ তাঁকে পণ্য প্রচারের জন্য সেলসম্যান হিসেবে কাজের প্রস্তাব দেন। পরে ওই তরুণীকে নিয়ে একটি মাইক্রোবাসে করে আরিফ ও তাঁর সহযোগী রাকিব কিশোরগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় ঘোরাঘুরি করেন।

পরে শিবপুরের একটি এলাকায় নিয়ে ওই তরুণীকে লাথি দিয়ে গাড়ি থেকে ফেলে মুখ বাঁধেন আরিফ ও রাকিব। পরে এলাকার একটি নির্জন জঙ্গলে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেন। রাতভর ধর্ষণ শেষে গত শনিবার সকালে জঙ্গলের পাশের একটি বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখা হয় ওই তরুণীকে। পরে সেখান থেকে কৌশলে পালিয়ে স্থানীয় এক ব্যক্তির সহায়তায় শিবপুর মডেল থানায় যান ওই তরুণী। পরে তাঁকে প্রথমে শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে বিকেলে নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত রাকিবকে আটক করলেও আরিফ পলাতক। ধর্ষণের শিকার ওই তরুণীর মা বলেন, শুক্রবার মেয়েকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে ডেকে নেয় আরিফ। কিন্তু সন্ধ্যা হয়ে রাত পেরিয়ে গেলেও মেয়ের কোনো খোঁজ পাচ্ছিলাম না। সারা রাত মোবাইলে চেষ্টা করেও পাইনি। গত শনিবার দুপুরে তাঁকে শিবপুর হাসপাতালে নেওয়ার পর আমরা ঘটনা জানতে পারি। শিবপুর মডেল থানার ওসি মোল্লা আজিজুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় গত শনিবার বিকেলে সৃষ্টিগড় এলাকা থেকে রাকিব নামের এক অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। তিনি প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। ধর্ষণের শিকার তরুণীর মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তকে আটক করা হয়। আর তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।