ঢাকা   মঙ্গলবার ২৮ জানুয়ারী ২০২০ | ১৫ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  মুজিববর্ষ উপলক্ষে সশস্ত্র বাহিনী বোর্ডের কম্বল বিতরণ (জামালপুরের খবর)        ইসলামপুরে যত্রতত্র ডাক্তারী পরীক্ষা ছাড়াই পশু জবাই : জনস্বাস্থ্য হুমকীর মুখে (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে ছাত্রলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত (জামালপুরের খবর)        দেওয়ানগঞ্জে একই পরিবারে তিন প্রতিবন্ধী (জামালপুরের খবর)        বকশিগঞ্জ গ্রামীণ রাস্তায় শ্রমিকদের সাথে মাটি কাটলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (জামালপুরের খবর)        ছোনটিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এস এস সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া (জামালপুরের খবর)        মামুন স্মৃতি পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ে এস এস সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া (জামালপুরের খবর)        ইসলামপুর কমিউনিটি ক্লিনিকের সেবার মান উন্নয়ন বিষয়ক মুখোমুখি সভা (জামালপুরের খবর)        সাংবাদিক এম শফিকুল ইসলাম ফারুকের পিতা আনিছুর রহমান আর নেই (জামালপুরের খবর)        শরিফপুর ইউনিয়ন পরিষদে সুলার প্যানেল বিতরণ (জামালপুরের খবর)      

শেরপুরে সাবেক ফারর্মাস ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের বিরুদ্ধে অনিয়মনের অভিযোগ: ঋণ গ্রহিতাদের মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

Logo Missing
প্রকাশিত: 02:46:57 am, 2019-11-21 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

শেরপুর প্রতিনিধি:

শেরপুরে সাবেক ফারর্মাস বাংকের (বর্তমান পদ্মা ব্যাংক) পরিচালনা পর্ষদ এবং কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম, দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতা ও গ্রাহক হয়রানীর অভিযোগে মানববন্ধন এবং জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

২০ নভেম্বর বুধবার দুপুরে শেরপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও সাবেক ফারমার্স ব্যাংকের ঋণ গ্রহিতা মো. ইলিয়াস উদ্দিন। মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসক ও জেলা পুলিশ সুপারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন। এসময় ব্যাংকের অন্যান্য ঋণগ্রহিতা এবং তাদের পরিবারের ভুক্তভোগি সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, শুরু থেকেই ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের অন্যতম সদস্য বর্তমানে দুদকের মামলায় কারাগারে আটক বাবুল চিশতি এবং স্থানীয় শাখার অসাধু কতিপয় কর্মকর্তা সু-কৌশলে এবং নানা প্রলোভন দেখিয়ে ঋণ অনুমোদন করে সেখান থেকে প্রায় অর্ধেক পরিমান টাকা নিজেরা ঘুষ বা কমিশন নিয়ে বাকি অর্ধেক টাকা গ্রাহকের হাতে তুলে দেয়। ফলে নির্দিষ্ট অংকের টাকা না পেলেও ব্যবসা করতে গিয়ে ওই টাকার উপর ঋণের বোঝা নিয়ে ব্যবসা করতে গিয়ে লাভের মুখ না দেখতে পাওয়ায় সবাই ঋণ খেলাপি হয়ে পরে। পরবর্তিতে তাদের বিরুদ্ধে ঋণ খেলপির মামলা দিয়ে শেরপুর ছাড়া করা হয়েছে।