ঢাকা   মঙ্গলবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামায়াত আদর্শ ধরে রাখলে পরিবর্তন বলা যাবে না: ওবায়দুল কাদের (রাজনীতি)        ৫৬টি সাইট বন্ধের নির্দেশ, বন্ধ হচ্ছে ১৫ হাজার পর্নো ও ২ হাজার জুয়ার সাইট (বিবিধ)         বাংলাদেশ-সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে চারটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর (জাতীয়)        ডাকসু: ৬ দফা দাবিতে উপাচার্য কার্যালয় ঘেরাও (রাজনীতি)        ব্যাংকের সংখ্যা নিয়ে চিন্তিত নন অর্থমন্ত্রী (জাতীয়)        নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জে শাবি চ্যাম্পিয়ন (জাতীয়)        দেশজুড়ে অবৈধভাবে চলা বিদ্যুৎচালিত যানবাহনকে বৈধতা দেয়ার উদ্যোগ (জাতীয়)        ডাকসু নির্বাচন, বৃহত্তর ঐক্য করবে বাম ছাত্রসংগঠন (রাজনীতি)        বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত বিশ্বসেরা (জাতীয়)        জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় ধনী দেশগুলোকে ‘সদিচ্ছা’ প্রদর্শনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর (জাতীয়)      

কোটার দাবিতে চতুর্থ দিনের মতো শাহবাগে অবরোধ

Logo Missing
প্রকাশিত: 05:52:36 pm, 2018-10-06 |  দেখা হয়েছে: 2 বার।

আজ ডেক্স

সরকারি সব চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য ৩০ ভাগ কোটাসহ সব ধরনের কোটা বহালের দাবিতে গতকাল শনিবার চতুর্থ দিনের মতো রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ শাহবাগ মোড় অবরোধ করেছে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা। দুপুর আড়াইটার দিকে শাহবাগের চারদিকের রাস্তা অবরোধ করে মাঝখানে অবস্থান নেয় বিক্ষোভকারীরা। এতে শাহবাগ মোড় হয়ে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিক্ষোভকারীরা কোটা পুনর্বহালের দাবিতে স্লোগান দেয়। নেতারা জানিয়েছেন, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাঁদের এই অবস্থান কর্মসূচি চলবে। তাঁরা বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা রক্তের বিনিময়ে এ দেশ স্বাধীন করেছেন। যার পুরস্কার হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৩০ শতাংশ কোটা দিয়েছেন। মুক্তিযোদ্ধা কোটা আমাদের অধিকার। এ কোটা বাতিল হলে মুক্তিযোদ্ধাদের অবদানকে অপমান করা হবে। আমরা চাই, এই কোটা বহাল রাখা হোক। এর আগে বুধবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে সরকারি চাকরিতে নিয়োগে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির পদে বিদ্যমান কোটা পদ্ধতি তুলে দিয়ে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।
রাজশাহীতে আদিবাসীদের মহাসড়ক অবরোধ: প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জন্য পাঁচ শতাংশ কোটা পুনর্বহালের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে আদিবাসী ছাত্র পরিষদ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা। গতকাল শনিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকের সামনে রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে ওই বিক্ষোভ প্রদর্শন করে ছাত্ররা। সে সময় বন্ধ হয়ে যায় সড়কের যান চলাচল। এর আগে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আদিবাসী ছাত্র পরিষদের আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজলা গেইট থেকে একটি মিছিল বের করা হয়। পরে মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকে এসে সড়ক অবরোধ করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পূর্বঘোষণা অনুযায়ী আদিবাসী ছাত্র পরিষদের অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকে এসে মহাসড়ক অবরোধ করেন। এ সময় তাঁরা রাস্তায় টায়ার জ¦ালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। আদিবাসীদের জন্য পাঁচ শতাংশ কোটার দাবিতে ‘মন্ত্রিপরিষদ সচিবের সিদ্ধান্ত, মানি না, মানব না’, ‘পাহাড় কী সমতলে, লড়াই হবে সমানতালে’ ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন। আদিবাসী ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি নকুল পাহান বলেন, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীগুলোর পাঁচ শতাংশ কোটা বহাল রাখতে হবে। ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কোটা বাতিলের সময় এখনো হয়নি। তারা এখনো ভালোভাবে এগিয়ে যায়নি। দেশব্যাপী ছাত্রদের কোটা সংস্কার আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারি প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে সব কোটা বাতিল করা হয়। তারপর থেকে দেশের বিভিন্ন স্থানে মুক্তিযোদ্ধা ও আদিবাসী পরিবারের সন্তানরা কোটা পুনর্বহালের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করছে।