ঢাকা   শুক্রবার ০৩ এপ্রিল ২০২০ | ২০ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামালপুরে সামজিক দূরত্ব নিশ্চিতে জেলা প্রশাসনের বিশেষ উদ্যোগ (জামালপুরের খবর)        করোনা পরিস্থিতিতে আরও বাড়তে পারে ছুটি (জাতীয়)        জামালপুরে করোনা রোগী তল্লাশির নামে কিশোরীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ (জামালপুরের খবর)        জামালপুর জেলা প্রশাসকের ত্রাণ বিতরণ (জামালপুরের খবর)        রিকশা-ভ্যানচালকদের মাঝে ত্রান পৌছে দিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদা ইয়াছমিন (জামালপুরের খবর)        জেলা ছাত্রদলের উদ্যোগে জীবাণু নাশক ঔষধ প্রয়োগ (জামালপুরের খবর)        শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে জ্বর শ্বাসকষ্টে ১ জনের মৃত্যু : ১০ বাড়ি লকডাউন (জেলার খবর)        জামালপুরে আ’লীগ নেতা উজ্জলের উদ্যোগে দরিদ্রদের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ (জামালপুরের খবর)        জামালপুর সনাকের নতুন সভাপতি অজয় কুমার পাল (জামালপুরের খবর)        ডিসিদের ভিডিও কনফারেন্সে নির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী (জাতীয়)      

শেরপুরে জাকের পার্টির ওরশ শুরু- লক্ষ ভক্তের আগমন

Logo Missing
প্রকাশিত: 01:16:58 am, 2020-02-17 |  দেখা হয়েছে: 8 বার।

শেরপুর প্রতিনিধি:

গতকাল ১৬ ফেব্রুয়ারি রবিবার বাংলাদেশ জাকের পার্টী’র সভাপতি পীরজাদা খাজা মোস্তুফা আমির ফয়সাল এবার তার বাপদাদার ভিটেয় তিন দিন ব্যাপী ওরশ শুরু করেছে। চলবে ১৮ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত। জাকের পার্টির আশেকান-ভক্তরা দীর্ঘদিন পর বিশ্ব জাকের মঞ্জিলের প্রাতষ্ঠাতা ফরিদপুর আটরশি পীর হযরত মাওলানা শাহসূফি হাসমত উল্লাহ (রঃ) এর পৈত্রিক বাড়ীতে ওরশ হওয়ায় পীরের বাড়ীর আশপাশ গ্রামে প্রায় লক্ষাধিক মানুষের আগমন ঘটেছে।
জানাগেছে, ফরিদপুরে পীর শাহসূফি হাসমত উল্লাহ (রঃ) ছোট ছেলে এবং জাকের পার্টির সভাপতি মোস্তুফা আমির ফয়সাল তার পৈত্রিক নিবাস শেরপুর সদর উপজেলার পাকুড়িয়া ইউনিয়নের পাকুড়িয়া গ্রামে। পীরের জন্ম এ গ্রামেই। পীর হাসমত উল্লাহর বাবার নাম ছিল আলিম উদ্দিন সরকার। আলিম উদ্দিন সরকারের কবরকে ঘিরে এখানে গড়ে উঠেছে পাক দরবার শরীফ।

স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, শাহসূফি হাসমত উল্লাহ (রঃ) তার যৌবন কাল পর্যন্ত এখানে বাবার সাথেই ছিলেন। তারপর তিনি চলে যান এনায়েতপুরের পীর ইউনুস আলী (রঃ) সাহেবের কাছে । ওখান থেকে দীক্ষা নিয়ে বাংলা ১৩৫৪ সনে পাড়ি জমান ফরিদপুরের আটরশিতে। আটরশিতে থাকা অবস্থায় দীর্ঘ সময় এলাকায় আসেননি। তবে ১৯৯৬ সালের ১৪ জানুয়ারি একবার শেরপুরে নিজ বাড়ীতে আসেন হাসমত উল্লাহ পীর। এর প্রায় ৫ বছর পর হাসমত উল্লাহ (রঃ) ২০০১ সালের ১লা মে বাংলা ১৮ বৈশাখ (উফাত) মৃত্যু বরণ করেন। তার মৃত্যুর পর পীর হাসমত উল্লাহর ছেলে আমীর ফয়সাল জাকের পার্টী চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন। আমীর ফয়সাল বেশ কয়েকবার শেরপুর আসলেও কোন প্রচারণা করেননি।

তবে এবার আসলেন বেশ ঘটা করে। তাকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাতে প্রায় ৫ কিলোমিটার দীর্ঘ রাস্তার উপর গেইট, অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা ব্যানার, ফেষ্টুনে ছেয়ে গেছে আশপাশের কয়েকটি গ্রাম। ট্রাকে ট্রাকে আসছে গরু, চাল, সবজি, তেল, লবন থালাসহ প্রয়োজনীয় সব কিছূ। তৈরি হয়েছে খাওয়া-দাওয়ার বিশাল প্যান্ডেল। ৪শতাধিক শৌচাগার নির্মান হয়েছে। থাকছে লক্ষাধিক মহিলা ধারন ক্ষমতা সম্পন্ন বিশাল দুটি প্যান্ডেল।

ওরশকে ঘিরে সারাদেশের জাকের পার্টীর নেতাকর্মী এবং জাকেরানরা আরো দুই তিন দিন আগ থেকেই চলে আসে। ফলে পাকুড়িয়া গ্রামের পাশাপাশি বাদাপাড়া, পূর্বপাড়া, খামারপাড়া, তিলকান্দি, ফকিরপাড়া, চকপাড়াসহ অন্তত ৮টি গ্রামে করা হয়েছে থাকার ব্যবস্থা, গাড়ী রাখা, রান্না-বান্নার সরঞ্জাম রাখা, গরু, ছাগল, মহিষ ও উট ইত্যাদি রাখার জন্য। খাওয়া-দাওয়া জন্য বিশাল ৫টি প্যান্ডেল রয়েছে। প্রতিটি প্যান্ডেলে এক সাথে দশ হাজার করে লোক খেতে বসতে পারবে। আয়োজনের নিরাপত্তার জন্য বসানো হচ্ছে শতাধিক সিসি ক্যামেরা, ৩শ হ্যান্ড মেটাল ডিটেক্টর থাকবে, প্রতিটি গেইটে থাকবে ওয়াচ টাওয়ার। নিজস্ব নিরাপত্তা কর্মী রয়েছে প্রায় ১০ হাজার।

১৩ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার বাদ ফজর পীরজাদা খাজা মোস্তুফা আমির ফয়সাল গ্রামে এসেই বাপদাদার ভিটেই এসেই উরশ অনুষ্ঠানের মূল টাওয়ারে ‘আল্লাহু আকবার’ খচিত পতাকা উত্তোলন করে উরসের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেন।

Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!
Image Not Found!