ঢাকা   ২০ জুলাই ২০১৯ | ৫ শ্রাবণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  দিনাজপুরে বিপৎসীমার কাছাকাছি ৩ নদীর পানি (জেলার খবর)         সিরাজগঞ্জে বিপৎসীমার ওপরে যমুনার পানি (জেলার খবর)        এরশাদের প্রতি দলীয় নেতাকর্মীদের শেষ শ্রদ্ধা (জাতীয়)        সংসদ প্রাঙ্গনে এরশাদের জানাজায় রাষ্ট্রপতি (জাতীয়)        ভালো শিক্ষকদের ক্লাস সম্প্রচারে টিভি চ্যানেল খোলার চিন্তা: শিক্ষামন্ত্রী (শিক্ষা)        পরিকল্পিত শিল্প এলাকার বাইরে বিদ্যুৎ-গ্যাস সংযোগ নয়: প্রতিমন্ত্রী (জাতীয়)        রাজস্ব বাড়াতে জেলা-উপজেলায় কমিটি চান ডিসিরা (জাতীয়)        শেষ হলো পদ্মা সেতুর পাইল বসানোর কাজ (জাতীয়)        বৃষ্টি ঝরবে আরো দু’তিন দিন (জাতীয়)        সুনামগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, পানিবন্দি লাখো মানুষ (জেলার খবর)      

নকলায় ১৯টির মধ্যে একটি মন্ডপ এখনো বিসর্জন দেওয়া হয়নি

Logo Missing
প্রকাশিত: 11:38:40 pm, 2018-10-20 |  দেখা হয়েছে: 16 বার।

নকলা সংবাদদাতা: শেরপুরের নকলা উপজেলা ১৯টি মন্ডপের মধ্যে টালকী এলাকায় একটি রবিদাস সম্প্রদায় বাড়ী মন্ডপটি এখনো বিসর্জন দেয়া হয়নি। জানা গেছে, স্বপ্নে দেবী সুখেন চন্দ্র বরিদাসকে পূজা বিসর্জন দিতে নিষেধ করেন। তাই তিনি বলেন,“মায়ের নির্দেশে আমরা প্রতীমা বিসর্জণ দেইনি। কেন না স্বপ্নযোগে মা আমাদেরকে নিষেধ করেছেন যে, তোমরা আমাকে বিসর্জন দিয়ো না আমি তোমাদের মাঝেই থাকতে চাই। সুখেন বাবু সপ্তাহে দুই দিন দেবীকে অন্নভোগ এবং বাকী দিনগুলো ফল-মুল দিয়ে ভোগ দিয়ে থাকেন এবং প্রতিদিন দেবীর পূজা করেন। মতিরাম রবিদাস জানান, ১৮ বছর যাবৎ আমরা এখানে পূজা করি। ৩ বার বিসর্জন দিয়েছি পরে বাশঁ সুতা মুর্তি নষ্ট হওয়ার কারণে নতুন করে ১ বার মুর্তি তৈরী করেছি। সুখেন বাবুর মতে, প্রতি বছর মুর্তির কালার অস্ত্র-সস্ত্র, গয়না, চুল, কলকাসহ সামগ্রী নতুন করে ব্যবহার করা হয়। হিন্দু ধর্মানুসারে ব্রাহ্মন বা চক্রবর্তীরা পূজা পরিচালনা করে থাকলেও মা দূর্গার নির্দেশ মোতাবেক আমি নিজেই পূজা পরিচালনা করে আসছি। নকলা উপজেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদ এর সভাপতি দেবজিৎ পোদ্দার ঝুমুর জানায়, যদি কোন প্রতীমা বিসর্জন না দিয়ে প্রতিদিন পূজা দেওয়ার সামর্থ থাকে তা হলে বিসর্জন না দিলেও চলবে। হিন্দু ধর্মমতে কোন ক্ষতি হবে না।