ঢাকা   ০৮ এপ্রিল ২০২০ | ২৫ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামালপুরে সাংবাদিক ও পুলিশকে পিপিই দিলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফারুক আহম্মেদ চৌধুরী (জামালপুরের খবর)        সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে র‌্যাবের কঠোর হুঁশিয়ারি (জামালপুরের খবর)        জামালপুর পৌরসভায় ব্যক্তিগত অর্থে ৫ হাজার ২শ ৯০টি পরিবারকে ত্রাণ দিলেন ছানোয়ার হোসেন ছানু (জামালপুরের খবর)        শাহবাজপুরে স্বল্পমূল্যে খাদ্যশস্য বিতরণ (জামালপুরের খবর)        ঝিনাইগাতীতে কর্মহীন মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্য সংকট (জেলার খবর)        শেরপুরে ত্রাণ চাইতে গিয়ে পৌর কাউন্সিলের বিরুদ্ধে নির্যাতনের শিকারের অভিযোগ! (জেলার খবর)        শেরপুরে কর্মহীন শ্রমিকদের মাঝে বাজুসের খাদ্য সহায়তা প্রদান (জেলার খবর)        চিকিৎসা সংশ্লিষ্টদের জন্য বিশেষ স্বাস্থ্যবীমার ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর (জাতীয়)        সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ছে ঈদ পর্যন্ত (জাতীয়)        বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদের মৃত্যুদন্ডাদেশ কার্যকর হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (জাতীয়)      

২১ দিনের লকডাউন ভাঙলেই হাজতবাস ২ বছর

Logo Missing
প্রকাশিত: 01:03:33 am, 2020-03-26 |  দেখা হয়েছে: 1 বার।

আ.জা. আন্তর্জাতিক:

করোনাভাইরাস ঠেকাতে মঙ্গলবার রাত বারোটা থেকেই দেশজুড়ে ২১ দিনের জন্য লকডাউন ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই ঘোষণায় তিনি বারবার দেশবাসীকে অনুরোধ করেছেন যাতে কেউ এই তিন সপ্তাহ বাড়ির বাইরে না বের হন। তবে কেউ যদি এই আর্জিকে শুধুমাত্র আর্জি হিসেবেই নেন তাহলে ভুল করবেন। কারণ এই নির্দেশিকা অমান্য করলে অভিযুক্তের দু বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে! এমনটাই হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, ইতোমধ্যে দেশজুড়ে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা আইন লাগু করে দেওয়া হয়েছে। সেই প্রেক্ষিতে লকডাউন সময় কেউ কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ ভাঙলে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা আইন প্রযোজ্য হবে। সে ক্ষেত্রে অভিযুক্ত কোনো ব্যক্তির দু বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে। শুধু তাই নয়, কোন সরকারি কর্মীকে লকডাউন পরিস্থিতিতে তার কাজে বাধা দিলেও তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। আরও জানানো হয়েছে, কেন্দ্রের তরফে আশা নির্দেশিকা পালন না করলে তো শাস্তি হবেই, নির্দেশিকা অমান্য যদি কারুর মৃত্যু হয় তবে নিয়ম লঙ্ঘনকারী ব্যক্তি আরও কঠোর শাস্তি পেতে পারেন। সরকারি কর্মীদের প্রতি এই নির্দেশিকায় কড়া বার্তা দেওয়া হয়েছে। যদি কোন সরকারি কর্মী এমন আপতকালে তার কর্তব্য থেকে সরে আসেন তাহলে তিনি কঠোর শাস্তি পাবেন। আবার সরকারি কর্মী যদি কোন আইন বিরুদ্ধ কাজ করেন তাহলেও তার হতে পারে জেল। কিছু ক্ষেত্রে জরিমানা ও জেল একসঙ্গে হতে পারে।