ঢাকা   রবিবার ০৭ জুন ২০২০ | ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  জামালপুরে ৬শ অসহায় পরিবারকে বিজিবির ত্রাণ বিতরণ (জামালপুরের খবর)        জামালপুরবাসীর স্বাস্থ্যসেবায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে চাই: আশরাফুল ইসলাম বুলবুল (জামালপুরের খবর)        করোনা দুর্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষের সমস্যা নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন-মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)        গন্তব্যে পৌছবে কি ছানুর নৌকা (জামালপুরের খবর)        বেতন ও বোনাসের টাকায় ঈদ সামগ্রী নিয়ে দেড়শ মধ্যবিত্ত পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন কিরন আলী (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে ভাগ্য বিড়ম্বিত শিশুদের মাঝে ঈদ উপহার ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ। (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে তরুনদের সহায়তায় দুইশত পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ (জামালপুরের খবর)        ময়মনসিংহে ৩শ দরিদ্র পরিবারের মাঝে সেনা প্রধানের ঈদ উপহার পৌঁছে দিলেন আর্টডক সদস্যরা (ময়মনসিংহ)        করোনা যোদ্ধা নার্সিং সুপারভাইজার শেফালী দাস শ্বাসকষ্টে মারা গেছেন (ময়মনসিংহ)        বিদ্যানদীর মত সকল সামাজিক সংগঠন যদি এই দুর্যোগের সময়ে এগিয়ে আসে তবে সরকারের উপর চাপ অনেকংশে কমে যাবে -মির্জা আজম এমপি (জামালপুরের খবর)      

মোদীর সঙ্গে যে কথা হলো টেন্ডুলকারের

Logo Missing
প্রকাশিত: 01:15:54 am, 2020-04-05 |  দেখা হয়েছে: 8 বার।

আ.জা. স্পোর্টস:

ভারতে দিন দিন বাড়ছে করোনাভাইরাসের প্রকোপ। প্রতি দিন বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা, বাড়ছে মৃত্যু। কোভিড-১৯ মহামারীর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে দেশের বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পরে এক বিবৃতিতে সেই আলোচনার বিস্তারিত জানিয়েছেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচিন টেন্ডুলকার। ভিডিও কনফারেন্সে শুক্রবার মোদীর সঙ্গে এই আলোচনায় অংশ নিয়েছিলেন ৪০ জন ক্রীড়াবিদ। ছিলেন ক্রীড়া মন্ত্রী কিরান রিজিজুও। পরে টেন্ডুলকার জানান, লকডাউনের এই সময়ে তিনি তার ব্যক্তিগত ভাবনা ও অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন ওই আলোচনায়। নরেন্দ্র মোদী, কিরান রিজিজু ও অন্যান্য ক্রীড়াবিদদের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ হয়েছিল আমার। আমরা কীভাবে লকডাউন মোকাবেলা করছি, তা নিয়ে আমি আমার ব্যক্তিগত মতামত ও অভিজ্ঞতা তুলে ধরেছি। আমাদের প্রবীণরা যারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছেন, তাদের যত্ন নেওয়া, এই সময়ে তাদের গল্প এবং অভিজ্ঞতা শোনা; এই ব্যাপারগুলো ছিল, যা প্রধানমন্ত্রী অনুভব করছিলেন।

১৪ এপ্রিল লকডাউন উঠে যাওয়ার পর আমরা কেউ যেন নিরাপত্তার দেয়াল ভেঙে না ফেলি এবং সেই কঠিন সময় কীভাবে সামলাতে হবে, সে বিষয়গুলো তুলে ধরেন তিনি। এই আলোচনায় উঠে এসেছে লকডাউনের সময়ে মানসিক ভাবে চাঙা থাকার গুরুত্বের কথাও। এই পরিস্থিতিতে মানসিক ফিটনেস যে শারীরিক ফিটনেসের মতই গুরুত্বপূর্ণ, তা নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি। ফিট থাকার জন্য আমি বাড়িতে কী করি, সেটাও জানিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে ভারতের বর্তমান-সাবেক ক্রিকেটারদের মধ্যে আরও ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি, বিরেন্দর শেবাগ, যুবরাজ সিং, চেতেশ্বর পুজারা ও রোহিত শর্মা। ছিলেন কিংবদন্তি অ্যাথলেট পি.টি. উষা, ব্যাডমিন্টনের দুই যুগের দুই তারকা পুলেলা গোপিচাঁদ ও পি.ভি. সিন্ধু, তরুণ অ্যাথলেট হিমা দাস, কুস্তিগীর বাজরাং পুনিয়া, দাবার কিংবদন্তি বিশ্বনাথন আনন্দ।