ঢাকা   রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ | ২৮ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  বন্যা ও করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করেই জেলার চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের কাজগুলো বাস্তবায়ন করতে হবে- আবুল কালাম আজাদ (জামালপুরের খবর)        সরিষাবাড়ীতে দুই বৎসর পর হত্যা রহস্য উদঘাটন করল সিআইডি (জামালপুরের খবর)        জামালপুরের বন্যা পরিস্থিতি: নিম্নাঞ্চলে কমছে ধীর গতিতে (জামালপুরের খবর)        অবহেলিত ঘোড়াধাপের রাস্তা-ঘাট সংস্কার করলেন আনছার আলী (জামালপুরের খবর)        জামালপুরে এক শিশু নারায়গঞ্জ ফেরত এক ব্যক্তিসহ ৭ জনের করোনা শনাক্ত , আক্রান্ত ৬৪৯ (জামালপুরের খবর)        শেরপুরে ঐতিহাসিক কাটাখালি যুদ্ধ দিবসে শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ (জেলার খবর)        শিগগিরই গ্রেফতার হবে রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান সাহেদ: র‌্যাব (জাতীয়)        ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনায় সংসদে বিল পাস (জাতীয়)        করোনা নিয়ে প্রতারণা ও অনিয়মের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে: কাদের (জাতীয়)        আরও ৩৪৮৯ জন করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু ৪৬ জনের (জাতীয়)      

বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে বিপদ সীমার ৮৪ সেন্টিমিটার উপর পানি

Logo Missing
প্রকাশিত: 07:42:51 pm, 2020-06-30 |  দেখা হয়েছে: 3 বার।

খাদেমুল ইসলাম:

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। গত কয়েক দিনের প্রবল বর্ষণ, ভারত থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢল ও ব্রহ্মপুত্র, যমুনা নদ-নদীসহ শাখা নদী সমূহের পানি আকস্মিকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় বিস্তির্ন এলাকা পানিতে ডুবেগেছে। নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। সোমবার দুপুর ১২ টা পর্যন্ত যমুনা নদীর বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে বিপদ সীমার ৮৪ সেন্টিমিটার উপর পানি প্লবাহিত হচ্ছে। উপজেলা পরিষদ- দেওয়ানগঞ্জ রেল স্টেশন-হাসপাতাল রোড পানিতে ডুবে গেছে। দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা পরিষদের অধিকাংশ বিভাগীয় দপ্তর সমূহ পানিতে ডুবে যাওয়ায় নৌকায় চড়ে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ অফিসে যাওয়া আসা করছেন। এতে স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। অফিসের কাগজপত্র ও আসবাবাদী অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। সরকারি কার্যক্রম অস্থায়ী স্থানে করার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। বেলতলী বাজার-মলমগঞ্জ সড়ক পানিতে ডুবে গেছে। দেওয়ানগঞ্জ-খোলাবাড়ী রোডে মন্ডল বাজার এলাকায় প্রধান সড়কের বৃহদাংশ ভেঙ্গে গেছে। দেওয়ানগঞ্জ-তারাটিয়া রোডের সবুজ পুর এলাকায় সড়ক যেকোনো সময় ভেঙ্গে যেতে পারে বলে জানান স্থানীয় প্রধান শিক্ষক রিয়াজুল হক ও নাহিদ চৌধুরী।

চিকাজানী ইউনিয়নের খোলাবাড়ীতে প্রায় ৬ কোটি টাকায় নির্মিত বাহাদুরাবাদ নৌ-থানা বিলিনের মুখে। দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা পরিষদের কয়েক কোটি টাকায় কমপ্লেক্স নির্মাণ কাজের স্থল পানিতে ডুবেগেছে। চুকাইবাড়ী ইউনিয়নের টিনের চর গুচ্ছুগ্রাম, গুজিমারী গুচ্ছু গ্রাম ও বাদেশশারিয়া বাড়ী গুচ্ছু গ্রাম পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে। এসব বাসিন্দাগণ অস্থায়ী আশ্রয় কেন্দ্রে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বাসভবনেও পানি উঠেছে। সোমবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুলতানা রাজিয়া নৌকায় চড়ে গিয়ে অফিস করেছেন। আলাপকালে তিনি জানান, মঙ্গলবার থেকে অস্থায়ী কার্যালয়ে অফিস করার চিন্তা ভাবনা চলছে। দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুলতানা রাজিয়া ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার এনামুল হাসান জানান, ইতি মধ্যে বন্যার্তদের জন্য ৩টি আশ্রয় কেন্দ্র যথাক্রমে দেওয়ানগঞ্জ সরকারি একেএম কলেজ, বীর হলকা স্কুল ও রেলওয়ে উচ্চ বিদ্যালয় স্থাপন করা হয়েছে। এখানে কয়েক শত পরিবার ইতিমধ্যে আশ্রয় নিয়েছে। তাদের মাঝে ২০০ মাস্ক ও হাত ধোয়ার সাবান বিতরণ করা হয়েছে। করোনার সংকটে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে সামাজিক দুরত্বকে। পিআইও এনামুল হাসান জানান, পৌরসভা সহ উপজেলার দেওয়ানগঞ্জ, চুকাইবাড়ী, চিকাজানী, বাহাদুরাবাদ, হাতিভাঙ্গা, পাররামপুর, চরআমখাওয়া ও ডাংধরা ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এতে পাট, আঁখ, শাকসবজির বাগানসহ অন্যান্য ফসলের ক্ষতির আংশঙ্কা করা হচ্ছে।