ঢাকা   ২০ মার্চ ২০১৯ | ৬ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Image Not Found!

সর্বশেষ সংবাদ

  ১৬ হাজার কোটি ডলারের যুদ্ধবিমান কিনছে মিসর (আন্তর্জাতিক)        নিউ জিল্যান্ডের মসজিদে হামলা : উদ্দেশ্য ‘লাইভ সম্প্রচার’ (আন্তর্জাতিক)        ক্যালিফোর্নিয়ায় মাতলামির অভিযোগে আটক পেরুর সাবেক প্রেসিডেন্ট (আন্তর্জাতিক)        বোয়িংয়ের নিরাপত্তার বিষয়টিকে ‘সর্বোচ্চ’ গুরুত্ব দেয়া হবে : সিইও (আন্তর্জাতিক)        অস্ট্রেলিয়ায় খুনের অপরাধে ১ ব্যক্তির ১১ বছরের কারাদন্ড (আন্তর্জাতিক)        মেক্সিকোর দূত হিসেবে রক্ষণশীল আইনপ্রণেতার নাম ঘোষণা ট্রাম্পের (আন্তর্জাতিক)        ইন্দোনেশিয়ায় বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৮৯ (আন্তর্জাতিক)        নেদারল্যান্ডসে হামলাকারী চিহ্নিত, ছবি প্রকাশ (আন্তর্জাতিক)        মোজাম্বিকে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ে সহস্স্রাধিক মৃত্যুর আশঙ্কা (আন্তর্জাতিক)        সালাম দিয়ে বক্তব্য শুরু করেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী (আন্তর্জাতিক)      

বরিশালে মেডিকেলে ময়লার স্তুপ থেকে ২২টি মানবভ্রণ উদ্ধার

Logo Missing
প্রকাশিত: 06:30:13 pm, 2019-02-19 |  দেখা হয়েছে: 2 বার।

আজ ডেক্সঃ বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ময়লার স্তূপে ২২টি মানবভ্রণ পাওয়া গেছে। গত সোমবার রাত ৯টার দিকে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা একসঙ্গে এই ভ্রƒণগুলো উদ্ধার করেন। ভ্রুণগুলো মেডিকেল শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরণ হিসেবে ব্যবহার হত বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি। বরিশাল সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মী মিরাজ হোসেন জানান, রাতে পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা হাসপাতালের পশ্চিমে প্রধান পানির ট্যাংকের পাশে থাকা ডাস্টবিনের ময়লা অপসারণ করার সময় ময়লার স্তূপের ভেতর প্লাস্টিকের বালতিতে ভ্রƒণগুলো দেখতে পান। পরে তারা বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানান। নাম প্রকাশ না করে হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান, হাসপাতালের গাইনি বিভাগে অনেক মায়ের অপরিণত বাচ্চা হয়। অনেক সময় পরিবারের লোকেরা এসব ভ্রণ নিয়ে যান; আবার অনেকে হাসপাতালে ফেলে যান। যেসব ভ্রণ ফেলে যাওয়া হয় সেগুলো দিয়ে মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের ক্লাস নেওয়া হয়। পরে তা কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নির্দেশে মাটিচাপা দেওয়া হয়। ভ্রণগুলোর অধিকাংশের হাত-পা-মাথা রয়েছে। বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরিচালক বাকির হোসেন বলেন, উদ্ধার হওয়া ভ্রুণগুলো ২৫ বছর আগের পুরনো। ফরমালিন দিয়ে সংরক্ষিত ভ্রুণগুলো গাইনি বিভাগের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরণ হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছিল। বর্তমানে এগুলো নষ্ট হয়ে যাওয়ায় কোনো কাজে আসছে না; তাই এগুলোকে ব্যবহার অনুপোযোগী ঘোষণা করা হয়েছে বলে বাকির হোসেন জানান। তিনি বলেন, বাতিল হিসেবে গণ্য ভ্রুণগুলো মাটিচাপা দেওয়ার কথা ছিল; কিন্তু এগুলো কেন ময়লার ভাগাড়ে ফেলা হলো তা গাইনি বিভাগ সংশ্লিষ্টরা ভালো জানেন। এ ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন করা হবে বলে জানান পরিচালক বাকির হোসেন। এদিকে, ভ্রুণগুলো সুরাতহাল করে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন বরিশাল কোতোয়ালি থানার ওসি নূরুল ইসলাম।